মালিক কে সবাই স্যার বলে ডাকলে,ও আমাকে আংকেলকে কখনো স্যার বলতে পর্যন্ত দেন নি আংকেল ডাকতে বলেছিলেন এতটাই আদর করতেন আমায়।তাই আমিও অফিসটাকে নিজের ভাবতে শুরু করেছিলাম। কিন্তু আমি জানতাম না সময় বদলাবে কেউ এসে আমাকে অফিসের চাকরানি বানিয়ে দিবে।যাই হোক আপনার আমার সাথে যাই করে থাকুন তাই বলে তো আর নিজের স্বপ্নকে চোখের সামনে ভাংগতে দেখতে পারিনা তাই না?

স্যার একটু আগে মিস্টার আগারওয়ালের ছেলে এসেছিলেন আপনার পিএ এর সাথে দেখা করতে আর প্রডাকশনের সব ডিটেল জানতে কিন্তু আপনার পিএ তাকে বিদায় করে দিতে চেয়েছিলেন আবার রাগ ও দেখিয়েছেন অথচ উনি ইউএস থেকে এসেছেন শুধুমাত্র এই ডিল টার জন্য।তাই আপনার পিএস হয়ে আমাকে কথা বলতেই হল। দরজাটা খোলা থাকলে এলিজা ম্যাডাম আমাকে পিএ এর পরিচয় দিতে দিতেন না বরং আমার সাথে ঝগড়া করতেন।

তাই দরজা লাগিয়ে কথা বলছিলাম। আজ উনি ফিরে গেলে আপনারা সবাই পথে বসতেন কারন ইতিমধ্যে ডেলিভারির জন্য ৮০% প্রোডাক্ট তৈরি হয়ে গেছে কিন্তু প্রোডাক্ট যতই ভাল হোক না কেন ডিলারের সাথে খারাপ ব্যবহার করলে ডিল ক্যান্সেল হবেই সবাই তো আর রুপ নয় যে সব অপমান মাথা পেতে সহ্য করে নিবে।আজ অর্ডারটা ক্যান্সেল হলে এতগুলি প্রোডাক্ট নষ্ট হত ফলস্বরুপ আপনারা পথে বসতেন। আর এলিজা ম্যাডাম আপনি আমাকে কি বের করবেন?

আমি নিজেই আজ অফিস থেকে চলে যাব কারন আমি বুঝে গেছি আপনাদের মত উচ্চশিক্ষতদের দিয়ে আর যাই হোক বিজনেস হবে না।আমি পাড়ব না নিজের স্বপ্নের অফিসের এত ভয়ানক পরিণতি দেখতে….তাই রিজাইন দিব। আজ আমার জায়গায় অন্য কেউ হলে হয়ত আপনার পিএ এর থাপ্পড় খাওয়ার পর এতটা করত না কিন্তু যার নুন খেয়েছি তার উপকার না করে পারলাম না।নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে চেস্টা করলাম উনাকে ম্যানেজ করার অনেক রিকুয়েষ্ট করলাম এতটাই অনুনয় করেছি যে শুধু পায়ে ধরাটা বাকি রেখেছি। স্যার আজ আপনার অফিসের জন্য এই নিম্ন শিক্ষত পিয়ন যেটা করে দিয়ে গেল সেটা আর কোন স্টাফ করবে কিনা সন্দেহ আছে। দেখে নিবেন আজকের এই এক মুহূর্তের দরজা লাগানোর জন্য কোম্পানি পিয়নকে সারাজীবন মনে রাখতে বাধ্য থাকবে। আমি চলে যাচ্ছি …পারলে অফিস রুমটাকে বেড রুম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here